এবার বাংলাদেশে ও নির্বাচনে লড়বে বিজেপি।

0
36
বরাক বাংলা, বাংলাদেশ প্রতিনিধি: বাংলাদেশের রাজনীতিতে আত্মপ্রকাশ করল বিজেপি৷ দলটি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়ার কথা জানিয়েছে৷ গতকাল, বুধবার ঢাকায় সাংবাদিক সম্মেলন করে একথা জানান সংগঠনের সভাপতি মিঠুন চৌধুরী৷
যদিও রাজনৈতিক দল হিসেবে নির্বাচন কমিশনে বিজেপির নিবন্ধন নেই বলে জানাচ্ছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম৷ বিজেপি অর্থাৎ বাংলাদেশ জনতা পার্টি নামেই পরিচিত হয়েছে দলটি৷ সংখ্যালঘু হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান আদিবাসী পার্টি এবং সমমনস্ক অর্ধশতাধিক সংগঠনের উদ্যোগে গঠিত হয়েছে এই দল৷

বিজেপিতে যোগ দেওয়া দলগুলি হল, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান আদিবাসী পার্টি, মুক্তির আহ্বান, বাংলাদেশ সচেতন সংঘ, জাগো হিন্দু পরিষদ, আনন্দ আশ্রম, হিন্দু লীগ, সনাতন আর্য সংঘ, বাংলাদেশ বুড্ডিস্ট ফেডারেশন, বাংলাদেশ ঋষি সম্প্রদায়, বাংলাদেশ মাইনরিটি ফ্রন্ট, হিউম্যান রাইটস, হিন্দু ঐক্য জোট সহ বিভিন্ন সংগঠন।
২০১৪ সালে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান আদিবাসী পার্টি গঠিত হয়। এদের উদ্যোগে আরও কিছু সংগঠন নিয়ে বিজেপি আত্মপ্রকাশ করল।
দলের সভাপতি ও মুখপাত্র হয়েছেন হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান আদিবাসী পার্টির সভাপতি মিঠুন চৌধুরী, মহাসচিব দেবাশিস সাহা। এছাড়া ঢাকা মহানগর সম্পাদক হয়েছেন দেবদুলাল সাহা। আর দলের যুব পার্টির সভাপতির নাম আশিক ঘোষ।
সাংবাদিকদের প্রশ্ন ছিল, বিজেপি কোনও ধর্মীয় জোট কি না? দলের সভাপতি মিঠুন চৌধুরী বলেন – ‘এটি মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের একটি দল।’
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়েছে বিজেপি আগামী নির্বাচনে সরকার গঠন করলে অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইনের জটিলতা কাটাবে, সংখ্যালঘুদের জন্য পৃথক মন্ত্রক করা হবে, প্রতিটি স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে অন্য ধর্মের উপাসনালয় তৈরি করা হবে এবং দুর্গাপূজায় তিন দিনের ছুটির গেজেট প্রকাশ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here